আসমানি কিতাব কাকে বলে? আসমানি কিতাব কি? কয়টি ও কি কি?

আসমানি কিতাব কয়টি ও কি কি?

আসমানি কিতাব কাকে বলে? কয়টি কি কি?

একজন মুসলমানের আসমানী কিতাব সম্পর্কে জানা জরুরী। আসমানী কিতাব সম্পর্কে জানতে হলে সবার আগে জানতে হবে আসমানী কিতাব কি? বা আসমানি কিতাব কাকে বলে?

তাহলে চলুন, আসমানী কিতাব কি? বা আসমানী কিতাব কাকে বলে? আসমানি কিতাব কয়টি ও কি কি? এ সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেই।




আসমানী কিতাব কাকে বলে?

কিতাব শব্দের অর্থ হলো লিপিবদ্ধ বা লিখিত বস্তু। এছাড়াও এর অনেকগুলো প্রতিশব্দ হয়েছে। যেমন, গ্রন্থ, বই, পুস্তক ইত্যাদি। তবে, আসমানী কিতাব হলো এমন গ্রন্থসমূহ  যা মহান আল্লাহ থেকে অবতীর্ণ হয়েছে।

ইসলামের পরিভাষায়, যেসব কিতাব মানব জাতির হেদায়েতের জন্য দিক-নির্দেশনা স্বরুপ মহান আল্লাহতা’লা নাযিল করেছেন তাকে আসমানী কিতাব বলে। অর্থাৎ সৃষ্টি জগতের প্রভু মহান আল্লাহর বাণী সম্বলিত গ্রন্থগুলোকে আসমানী কিতাব বলে।

আল্লাহতা’লা জিবরাঈল আলাইহি ওয়াসাল্লাম নামক এক ফেরেস্তার মাধ্যমে আল্লাহর বাণী সমূহ রাসূলগণের নিকট প্রেরণ করেছেন। অতঃপর রাসূলগণ তা সাধারণ মানুষের নিকট পৌঁছে দিয়েছেন।

 

আসমানি কিতাবের বিষয়বস্তু

আসমানী কিতাব সমূহে মহান আল্লাহতা’লা নানা বিষয়ের উপর আলোচনা করেছেন। সেগুলো হলো-

  • মহান আল্লাহতা’লার সত্তাগত পরিচয়।
  • মহান আল্লাহতা’লার গুণাবলীর বর্ণনা।
  • আল্লাহর নবী ও রাসূলগণের বর্ণনা।
  • আকিদা সংক্রান্ত বর্ণনা।
  • হালাল ও হারামের বর্ণনা।
  • ইসলামী বিধি-বিধান সংক্রান্ত বর্ণনা।
  • পূর্ববর্তী জাতি গোষ্ঠীর আলোচনা।
  • অবাধ্য ও কাফেরদের পরিণতির আলোচনা।
  • শান্তি ও সতর্কীকরণ বিষয়ে আলোচনা।
  • উপদেশ ও সুসংবাদ সম্পর্কে বিবরণ।
  • পরকাল সম্পর্কিত বর্ণনা।

 




আসমানী কিতাব কয়টি ও কি কি?

মহান আল্লাহতা’লা সর্বমোট ১০৪ খানা আসমানি কিতাব নাযিল করেছেন। তার মধ্যে, ৪ খানা বড়  বা প্রসিদ্ধ কিতাব। অবশিষ্ট  ১০০ খানা ছোট কিতাব। ছোট কিতাবগুলোকে সহিফা নামে ডাকা হয়।

বড় ৪ খানা কিতাব চারজন প্রসিদ্ধ রাসুলের উপর নাযিল হয়েছে। তারা হলেন-

  • হযরত মূসা (আ) এর উপর নাযিল হয়েছে- তাওরাত।
  • হযরত দাউদ (আ) এর উপর নাযিল হয়েছে- যাবুর ।
  • হযরত ঈসা (আ) এর উপর নাযিল হয়েছে- ইঞ্জিল।
  • হযরত মুহাম্মদ (সা) এর উপর নাযিল হয়েছে- কোরআন ।





অবশিষ্ট  ১০০ খানা কিতাব ৪ জন নবীর উপর নাযিল হয়। তারা হলেন-

  • হযরত আদম (আ) এর উপর নাজিল হয় – ১০ (দশ) খানা।
  • হযরত শিস (আ) এর উপর নাজিল হয় – ৫০ (পঞ্চাশ) খানা।
  • হযরত ইব্রাহিম (আ) এর উপর নাজিল হয় – ১০ (দশ) খানা।
  • হযরত ইদ্রিস (আ) এর উপর নাজিল হয় – ৩০ (ত্রিশ)  খানা।




আরো পড়ুন

ইশরাক নামাজ বা সালাতুল ইশরাক কি, ইশরাক নামাজের ফজিলত

আজকের এই পোস্ট থেকে আমরা জানতে পারলাম আসমানি কিতাব কি? আসমানি কিতাব কাকে বলে? আসমানি কিতাব কয়টি ও কি কি? পোস্টটি কেমন লাগলো আমাদের কমেন্ট করে জানান। ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button