৪৪তম বিসিএস পরীক্ষার খুটিনটি

৪৪তম বিসিএস বিস্তারিত

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে চূড়ান্ত পরীক্ষা শেষ না হওয়ায় ৪৪তম বিসিএস এর আবেদন একমাস বাড়ানো হয়েছিলো। এ বিসিএস এ মোট ৩ লাখ ৫০ হাজার ৭১৬ জন আবেদন করেছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)।

৪৪তম বিসিএস আবেদন শুরু ও শেষ তারিখ-

গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর ৪৪তম বিসিএস এর অনলাইন আবেদন চালু হয়। যা শেষ হয় ২ মার্চ।

৪৪ তম বিসিএস পরীক্ষার তারিখ

৪৪তম বিসিএস এর প্রিলিমিনারি পরীক্ষা আগামী ২৭ মে অনুষ্ঠিত হবে।

৪৪তম বিসিএসে মোট শূন্যপদ

৪৪তম বিসিএস হবে সাধারণ (জেনারেল)। এ বিসিএসে মোট ১ হাজার ৭১০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। তবে, ১ হাজার ৭১০ জনের মধ্যে ১ হাজার ৭১০ শিক্ষা ক্যাডারে নিয়োগ দেওয়া হবে।

এছাড়া, পররাষ্ট্র ক্যাডারে নিয়োগ দেওয়া হবে ১০জনকে, প্রশাসন ক্যাডারে নিয়োগ দেওয়া হবে ২৫০ জনকে, পুলিশ ক্যাডারে নিয়োগ দেওয়া হবে ৫০ জনকে, নিরীক্ষা ও হিসাবে ৩০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে, আনসার ক্যাডারে নিয়োগ দেওয়া হবে ১৪ জনকে, রেলওয়ে পরিবহন ও বাণিজ্যিকে ৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে, সমবায়ে ৮ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে, বাণিজ্যে ৬ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে, তথ্যে ১০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে, ডাকে ২৩ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে, পরিবার পরিকল্পনায় ২৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে, টেকনিক্যাল ক্যাডারে ৪৮৫ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে, খাদ্যে ৩ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

বিসিএস প্রিলিমিনারি ও লিখিত পরীক্ষার বিষয়ভিত্তিক সিলেবাস-

প্রিলিমিনারি পরীক্ষার বিষয়ভিত্তিক সিলেবাস

বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে থাকবে ৩৫ নম্বর।

ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্যে থাকবে ৩৫ নম্বর।

বাংলাদেশ বিষয়াবলিতে থাকবে ৩০ নম্বর।

আন্তর্জাতিক বিষয়াবলিতে থাকবে ২০ নম্বর।

সাধারণ বিজ্ঞান থাকবে ১৫ নম্বর।

গাণিতিক যুক্তিতে থাকবে ১৫ নম্বর।

মানসিক দক্ষতায় থাকবে ১৫ নম্বর।

পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় থাকবে ১০ নম্বর।

কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তিতে থাকবে ১৫ নম্বর।

নৈতিকতা, মূল্যবোধ ও সুশাসনের ওপর ১০ নম্বর থাকবে।

 

লিখিত পরীক্ষার বিষয়ভিত্তিক সিলেবাস-

সাধারণ ক্যাডারের জন্য লিখিত পরীক্ষায়-

বাংলা বিষয়ে থাকবে ২০০ নম্বর।

ইংরেজি বিষয়ে থাকবে ২০০ নম্বর।

বাংলাদেশ বিষয়াবলিতে থাকবে ২০০ নম্বর।

আন্তর্জাতিক বিষয়াবলিতে থাকবে ১০০ নম্বর।

গাণিতিক যুক্তি ও মানসিক দক্ষতা বিষয়ে থাকবে ১০০ নম্বর (মানসিক দক্ষতা পরীক্ষায় ৫০টি এমসিকিউ প্রশ্ন থাকবে। প্রতিটি প্রশ্নের মান ১ নম্বর। প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য .৫০ নম্বর করে কাটা যাবে) ।

সাধারণ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ে থাকবে ১০০নম্বর

আর মৌখিক পরীক্ষা হবে ২০০ নম্বরের।

বি.দ্র. প্রফেশনাল বা টেকনিক্যাল ক্যাডারের প্রার্থীদের বাংলায় ২০০ নম্বরের পরিবর্তে ১০০ নম্বর এবং সাধারণ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ের পরিবর্তে সংশ্লিষ্ট পদের প্রাসঙ্গিক বিষয়ে ২০০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button