ভাষা কাকে বলে? সাধু ও চলিত ভাষার মধ্যে পার্থক্য কী?

ভাষা কাকে বলে? সাধু ও চলিত ভাষার মধ্যে পার্থক্য কী?

ভাষা কাকে বলে?

অনুভূতিশীল মানবমনের অর্থপূর্ণ ভাব এবং এই ভাব প্রকাশের মাধ্যমই হল ভাষা।

ভাষার সংজ্ঞা : ভাষার সংজ্ঞা প্রদান করতে গিয়ে ভাষাপণ্ডিতগণ অনেক ধরনের মতবাদ ব্যক্ত করেছেন।

যেমন: ডক্টর মুহম্মদ শহীদুল্লাহ্ বলেছেন “মনুষ্যজাতি যেসব ধ্বনি বা ধ্বনিসমষ্টির সাহায্যে মনের ভাব প্রকাশ করে তাকে ভাষা বলা হয়ে থাকে। ”

আরও পড়ুন:

ভাষা কী? ভাষা প্রকাশের মাধ্যম কয়টি ও কী কী?

মাতৃভাষা কাকে বলে?

বর্ণ কি বা বর্ণ কাকে বলে? বর্ণ কত প্রকার ও কি কি?

বাক্য কাকে বলে? একটি সার্থক বাক্যের কী কী গুণ থাকা আবশ্যক?

আবার, ভাষা সম্পর্কে ড. সুকুমার সেনের অভিমত হল- “মানুষের উচ্চারিত, অর্থবহ বহুজনের বোধগম্য ধ্বনিসমষ্টিই ভাষা।” ভাষাবিদগণের এ জাতীয় অভিমত বিশ্লেষণ করে আমরা বলতে পারি ভাষা হল মানুষের নিজস্ব মনোভাব প্রকাশ করার পাশাপাশি অপরের সঙ্গে মনোভাব আদান-প্রদান করার বোধগম্য এক অনন্য মাধ্যম বিশেষ।

সাধু ও চলিত ভাষার মধ্যে পার্থক্য-

সাধুরীতি-
  • সাধু ভাষার পদবিন্যাস সুনির্দিষ্ট এবং ব্যাকরণ দ্বারা সুনিয়ন্ত্রিত।
  • এভাষায় ক্রিয়া ও সর্বনাম পদ এবং অনুসর্গের পূর্ণরূপ ব্যবহৃত হয়।

যেমন: ক্রিয়াপদ-পড়িতেছি, পড়িয়াছি

সর্বনামপদ- তাহারা, উহাদের

অনুসর্গ- হইতে, বিহনে প্রভৃতি।

  • সাধু ভাষা কৃত্রিম, প্রাচীন ও অপরিবর্তনীয়।
  • এ ভাষা গুরু-গম্ভীর এবং এতে তৎসম শব্দের ব্যবহার বেশি।
  • এ ভাষা গুরু-গম্ভীর ও ওজস্বী হওয়ায় কথোপকথন, বক্তৃতা ও সংলাপের অনুপযোগী।
  • সাধু ভাষায় সন্ধি ও সমাসবদ্ধ শব্দের ব্যবহার বেশি। যেমন: ১) বৃক্ষচ্ছায়া ২) অনভিপ্রেত প্রভৃতি।
চলিতরীতি
  • চলিত ভাষার পদবিন্যাস সবসময় সুনির্দিষ্ট বা ব্যাকরণ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত নয় ।
  • এভাষায় ক্রিয়া ও সর্বনাম পদ এবং অনুসর্গের সংক্ষিপ্ত রূপ ব্যবহৃত হয়।

যেমন: ক্রিয়াপদ-পড়ছি, পড়েছি।

সর্বনামপদ-তারা, ওদের

অনুসর্গ- হতে, বিনা প্রভৃতি।

  • চলিত ভাষা কৃত্তিমতা বর্জিত, বহুল প্রচলিত এবং পরিবর্তনশীল।
  • এ ভাষা গতিশীল, এবং এতে তদ্ভব, দেশি ও বিদেশি শব্দে ব্যবহার বেশি।
  • এ ভাষা সহজবোধ্য, সংক্ষিপ্ত ও গতিশীল হওয়ায় সর্বক্ষেত্রে ব্যবহার উপযোগী।
  • চলিত ভাষায় অনেক সময় সন্ধি ও সমাসবদ্ধ শব্দ ভেঙ্গে ব্যবহার করা হয়। যেমন: ১) বৃক্ষের ছায়া ২) অভিপ্রেত নয় প্রভৃতি।

####

এই পোস্ট থেকে আমরা ভাষা কাকে বলে? সাধু ও চলিত ভাষার মধ্যে পার্থক্য কী?  সম্পর্কে জানতে পারলাম। পোস্টটি কেমন লাগলো আমাদের কমেন্ট করে জানান। ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button