বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২

বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২

বৈশ্বিক মহামারী কোভিড-১৯ এর কারণে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ স্বাস্থ্য বিধি মেনে প্রাকনির্বাচনী ও মূল ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে দুই ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। এ প্রেক্ষিতে প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা চারটি শিফটে গ্রহণ করা হবে। প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় মেধার ভিত্তিতে নির্বাচিত আবেদনকারীদের মূল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ প্রদান করা হবে। বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ অনুযায়ী প্রাক-নির্বাচনী ও মূল ভর্তি পরীক্ষা বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল, পুরকৌশল, যন্ত্রকৌশল, তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক কৌশল এবং স্থাপত্য ও পরিকল্পনা অনুষদসমূহের বিভিন্ন বিভাগে স্নাতক শ্রেণিতে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তিচ্ছু বাংলাদেশী নাগরিকদের কাছ থেকে নির্ধারিত ফরমে আবেদন আহ্বান করা হয়েছে।

যে সকল ছাত্র-ছাত্রী ২০১৭ ও ২০১৮ সালে মাধ্যমিক ও সমমান পরীক্ষা এবং ২০২০ সালে উচ্চ মাধ্যমিক সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন, অথবা

২০১৭ সালের মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষা এবং ২০১৯ সালে উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ও উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমান পরীক্ষার সংশোধিত ফলাফল ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখের পরে শিক্ষা বোর্ড থেকে প্রকাশিত হয়েছে,

অথবা

২০১৬ সালের নভেম্বর বা তার পরে GCE “O” লেভেল এবং ২০১৯ সালের নভেম্বর থেকে ২০২০ সালের অক্টোবর পর্যন্ত GCE “A” লেভেল পরীক্ষার ফলাফল প্রাপ্ত হয়েছেন,

অন্যান্য শর্তপূরণ সাপেক্ষে শুধুমাত্র তাঁরাই ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদন করতে পারবেন। যে সকল ছাত্র-ছাত্রী ইতােপূর্বে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন অথবা অংশগ্রহণের যোগ্যতা অর্জন করেছেন তারা এই ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।

  টাইমলাইন
 আবেদন শুরু :  

শেষ তারিখ : 

আবেদন ফী প্রদানের শেষ তারিখঃ 

প্রাক নির্বাচনী পরীক্ষা : ০৪ জুন ২০২২

মূল ভর্তি পরীক্ষার যোগ্য প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশঃ 

মূল ভর্তি পরীক্ষা (লিখিত): ১৮ জুন ২০২২

ভর্তি পরীক্ষার ফলাফলঃ 

আবেদনের লিংক:  ugadmission.buet.ac.bd

যোগ্য প্রার্থীদের তালিকা 

১। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ অনুসারে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের যোগ্যতা

[ক] প্রার্থীকে বাংলাদেশের যে কোন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড/মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড /কারিগরি শিক্ষা বোর্ড থেকে গ্রেড পদ্ধতিতে বিজ্ঞান বিভাগে (গণিত, পদার্থবিজ্ঞান ও রসায়নসহ) ৫.০০ এর স্কেলে কমপক্ষে জিপিএ ৪.০০ পেয়ে মাধ্যমিক স্কুল  সার্টিফিকেট/দাখিল/সমমানের পরীক্ষায় পাশ করতে হবে অথবা বিদেশী শিক্ষা বোর্ড থেকে সমমানের পরীক্ষায় কমপক্ষে সমতুল্য গ্রেড পেয়ে পাশ করতে হবে।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ এ বলা হয় যে, আবেদন করার জন্য বাংলাদেশের শিক্ষা বোর্ড থেকে উচ্চ মাধ্যমিক/ আলীম/ সমমান পরীক্ষায় পদার্থ বিজ্ঞান, গণিত, ও রসায়ন বিষয়ে রেজিস্ট্রেশনসহ গ্রেড পদ্ধতিতে জিপিএ ৫.০০ এর স্কেলে কমপক্ষে জিপিএ ৫.০০ এবং মাধ্যমিক/দাখিল/সমমানের পরীক্ষায় গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়ন এই তিনটি বিষয়ে ৩০০ নম্বরের মধ্যে ন্যূনতম ২৭০ নম্বর পেয়ে মাধ্যমিক/দাখিল/সমমানের পরীক্ষায় পাশ করতে হবে অথবা বিদেশী শিক্ষা বোর্ড থেকে সমমানের পরীক্ষায় কমপক্ষে সমতুল্য গ্রেড/ নম্বর পেয়ে পাশ করতে হবে।

যে সব প্রার্থী ২০১৭ সালে মাধ্যমিক বা তার সমমানের পরীক্ষায় এবং ২০১৯ সালে উচ্চ মাধ্যমিক বা তার সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন কিন্ত উচ্চ মাধ্যমিক বা তার সমমানের পরীক্ষায় তাদের সংশোধিত ফলাফল ১০ই সেপ্টেম্বর ২০১৯ইং তারিখের পরবর্তীতে শিক্ষা বোর্ড হতে প্রকাশিত হয়েছে, তাদেরকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, কারিগরি শিক্ষা বোর্ড, মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড থেকে গণিত, রসায়ন, পদার্থ বিজ্ঞান, এই তিনটি বিষয়ে ৬০০ নম্বরের মধ্যে ন্যূনতম ৪৮০ নম্বর পেয়ে উচ্চ মাধ্যমিক/আলীম/সমমানের পরীক্ষায় পাশ করতে হবে অথবা বিদেশী শিক্ষা বোর্ড থেকে সমমানের পরীক্ষায় কমপক্ষে সমতুল্য গ্রেড/ নম্বর পেয়ে পাশ করতে হবে।

সকল সঠিক আবেদনকারীর মধ্য হতে উপরে উল্লেখিত নির্ধারিত নম্বরের ভিত্তিতে বাছাই করে ১ম থেকে ২৪,০০০ তম পর্যন্ত সকল আবেদনকারীকে প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে দেয়া হবে। এই বাছাইয়ের জন্য যথাক্রমে আবেদন কারি শিক্ষার্থীর মাধ্যমিক পরীক্ষায় পদার্থ বিজ্ঞান, গণিত, ও রসায়ন (এই ৩টি) বিষয়ে প্রাপ্ত মোট নম্বরকে অগ্রাধিকারের হিসেবে বিবেচনা করা হবে।

[খ] বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২এ বলা হয় GCE “O” লেভেল এবং GCE “A” লেভেল পাশ করা প্রার্থীদের প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য GCE “O” লেভেল পরীক্ষায় কমপক্ষে পাঁচটি বিষয় (গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন এবং ইংরেজিসহ) এর প্রতিটিতে কমপক্ষে B গ্রেড এবং GCE “A” লেভেল পরীক্ষায় গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়ন এই তিন বিষয়ের প্রতিটিতে কমপক্ষে A গ্রেড পেয়ে পাশ করতে হবে।

ন্যূনতম যোগ্যতা পূরণ সাপেক্ষে GCE “O” লেভেল এবং GCE “A” লেভেল পরীক্ষার ফলাফল প্রাপ্ত সকল সঠিক আবেদনকারীকে প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়া হবে।

[গ] ন্যূনতম যোগ্যতা পূরণ সাপেক্ষে ক্ষুদ্র নৃ- গোষ্ঠীভুক্ত সকল সঠিক আবেদনকারীকে প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়া হবে।

[ঘ] বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ এর উপরোক্ত শর্তাবলী পূরণ সাপেক্ষে প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য প্রার্থীদের চারটি শিফটে বিভক্ত করে প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা নেয়া হবে। পরিসংখ্যানভিত্তিক পদ্ধতি অনুসরণ করে প্রতিটি শিফটে প্রার্থীদের মেধার বিন্যাসের সমতুল্যতা নিশ্চিত করা হবে।

প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য বিবেচিত আবেদনকারীদের তালিকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নোটিশ বোর্ডে এবং ওয়েবসাইট (www.buet.ac.bd) -এ প্রকাশ করা হবে।

[ঙ] প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষার ফলাফলের মেধাক্রম অনুসারে ১ম থেকে ৬০০০তম (প্রতি শিফটের ১ম থেকে ১৫০০ তম) শিক্ষার্থীকে মূল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য নির্বাচিত করা হবে। মূল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য বিবেচিত আবেদনকারীদের তালিকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নোটিশ বোর্ডে এবং ওয়েবসাইট (www.buet.ac.bd) -এ প্রকাশ করা হবে।

২। বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১২০২২ এর প্রাক নির্বাচনী এবং মূল ভর্তি পরীক্ষার বিষয়সমূহ পাঠ্যসূচী

বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি অনুষদের বিভিন্ন বিভাগের জন্য নিম্নলিখিত দুটি গ্রুপের আওতায় দুই দিনে চারটি শিফটে প্রাকনির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

গ্রুপ “ক”: প্রকৌশল বিভাগসমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ

গ্রুপ “খ”: প্রকৌশল বিভাগসমূহ, স্থাপত্য বিভাগ, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২১-২২ প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষার বিষয়সমূহ ও পাঠ্যসূচী নিম্নরূপ:

বিভাগ

বিষয়

পাঠ্যসূচী

গ্রুপ কঃ প্রকৌশল বিভাগসমূহ গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়ন ২০২০ সালের উচ্চ মাধ্যমিকের এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ

 

গ্রুপ খঃ প্রকৌশল বিভাগসমূহ, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ এবং স্থাপত্য বিভাগ।

 

গনিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়ন

২০২০ সালের উচ্চ মাধ্যমিকের পাঠ্যসূচী

 

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২২ প্রাকনির্বাচনী পরীক্ষার বিষয়সমূহ, প্রশ্নপত্রের ধরণ নম্বরের বিন্যাস

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২২ প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় “ক” ও “খ” গ্রুপের জন্য মোট ১০০ নম্বরের MCQ Type পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার বিষয় এবং বিষয়সমূহের পূর্ণমান নীচের ছকে দেয়া হলোঃ

গ্রুপ “ক” এবং গ্রুপ “খ” প্রশ্নসংখ্যা পূর্ন মান সময়
গনিত ৩৪ ১০০ ৬০ মিনিট
পদার্থ বিজ্ঞান ৩৩
রসায়ন ৩৩

 

বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ এর বিশেষ দ্রষ্টব্য

  • প্রতিটি প্রশ্নের মান ০১।
  • প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় নেগেটিভ মার্কিং করা হবে এবং প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য প্রাপ্ত নম্বর থেকে প্রশ্নের মানের ২৫% কেটে নেয়া হবে।
  • OMR Sheet এ শুধুমাত্র কালো কালির বলপয়েন্ট কলমের মাধ্যমে বৃত্ত ভরাট করা যাবে। জেল পেন, ফাউন্টেন পেন অথবা পেন্সিল ব্যবহার করা যাবে না।
  • পরিশিষ্ট-ক অনুসারে অনুমােদিত ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে।
  • মোবাইল ফোন ও ওয়াচ ফোনসহ যে কোন প্রকার ইলেক্ট্রনিক যন্ত্র, জ্যামিতি বক্স, পেন্সিল বক্স, স্কেল, সেট-স্কয়ার, কম্পাস ও কোন প্রকার ব্যাগ পরীক্ষা কক্ষে নিয়ে আসা যাবে না।
  • উত্তরপত্রে Admission Test Roll No, এবং Application Serial No. না লিখলে বা ঘষামাজা করলে উত্তরপত্র বাতিল বলে গন্য হবে।

মূল ভর্তি পরিক্ষার বিষয়সমূহ ও পাঠ্যসূচী

বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি অনুষদের বিভিন্ন বিভাগের জন্য নিম্নলিখিত দুইটি গ্রুপের আওতায় একই দিনে মূল ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে

গ্রুপ “ক” প্রকৌশল বিভাগ সমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ

গ্রুপ “খ” প্রকৌশল বিভাগ সমূহ নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ এবং স্থাপত্য বিভাগ

 মূল ভর্তি পরীক্ষার বিষয় সমূহ ও পাঠ্যসূচি নিম্নরূপ

বিভাগ বিষয় পাঠসূচী
গ্রুপ কঃ ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়ন ২০২০ সালের উচ্চ মাধ্যমিকের পাঠ্যসূচী
গ্রুপ খঃ  ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগসমূহ, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ এবং স্থাপত্য বিভাগ গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়ন ২০২০ সালের উচ্চ মাধ্যমিকের পাঠ্যসূচী
মুক্তহস্ত অংকন এবং দৃষ্টগত ও স্থানিক ধীশক্তি উম্নুক্ত

 

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২২ মূল ভর্তি পরীক্ষার বিষয় সমুহ প্রশ্নপত্রের ধরন ও নম্বরের বিন্যাস

মূল ভর্তি পরীক্ষায় ‘ক’ গ্রুপের জন্য মোট 40 নম্বরের এবং গ্রুপের জন্য মোট 650 নম্বরের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রত্যেক গ্রুপের পরীক্ষার বিষয় এবং বিষয় সমূহের পূর্ণমান নিচে দেয়া হলঃ

মডিউল গ্রুপ গ্রুপ প্রশ্নসংখ্যা পূর্ণমান সময়
A গণিত গণিত ১৪ ৪০০ ১২০ মিনিট
পদার্থ বিজ্ঞান পদার্থ বিজ্ঞান ১৩
রসায়ন রসায়ন ১৩
B _ মুক্তহস্ত অংকন ২৫০ ৯০ মিনিট
দৃষ্টিগ ও স্থানিক ধীশক্তি

 

আরো পড়ুন- প্রস্তুতি পড়াশোনা

আরো পড়ুন- বাংলা ২য় পত্র

বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২২ এর বিশেষ দ্রষ্টব্য

  • মূল ভর্তি পরীক্ষাতে মডিউল A ও মডিউল B এর প্রত্যেকটি বিষয়ের সকল প্রশ্ন এবং মূল্যায়ন প্রচলিত পদ্ধতিতেই করা হবে।
  • A এর মডিউলের প্রতিটি প্রশ্নের মান ১০। B মডিউল এর মুক্তহস্ত অংকন সংক্রান্ত সবগুলো প্রশ্নের মান ৭০, দৃষ্টিগত এবং স্থানিক ধীশক্তি সংক্রান্ত সবগুলো প্রশ্নের মান ১০।
  • ভর্তি পরীক্ষার সময় কেবলমাত্র কলম, পেন্সিল, ইরেজার, শার্পনার ও পরিশিষ্ট-ক অনুসারে অনুমোদিত ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে।
  • মোবাইল ফোন ও ওয়াচ ফোনসহ যে কোন প্রকার ইলেক্ট্রনিক বা টেলিযোগাযোগ যন্ত্র, জ্যামিতি বক্স, পেন্সিল বক্স, স্কেল, সেট-স্কয়ার, কম্পাস ও কোন প্রকার ব্যাগ পরীক্ষা কক্ষে নিয়ে আসা যাবে না।
  • সকল বিষয়ের নমুনা প্রশ্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.buet.ac.bd) পাওয়া যাবে।

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২১-২২ প্রাকনির্বাচনী মূল ভর্তি পরীক্ষায় স্বাস্থ্যবিধিসমূহ

  • প্রাক-নির্বাচনী ও মূল ভর্তি পরীক্ষার নির্ধারিত সময়ের ন্যূনতম ৩০ মিনিট পূর্বেই পরীক্ষা কেন্দ্রের নির্ধারিত আসনে আসন গ্রহণ করতে হবে।
  • পরীক্ষা কেন্দ্র বা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ ও অবস্থানকালীন সময়ে সবসময়ে মাস্ক পরিধান করতে হবে।
  • পরীক্ষার্থীদের একটি অতিরিক্ত মাস্ক সাথে রাখা বাঞ্ছনীয়।
  • পরীক্ষা কেন্দ্র বা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে চলাচলের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশিত বিধি অনুযায়ী ন্যূনতম ছয় ফুট সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে।
  • পরীক্ষার হলে খাবার পানি সরবরাহ করা হবেনা। পরীক্ষার্থীরা নিজস্ব পানি (সর্বোচ্চ ৬০০ মিলি মাপের স্বচ্ছ প্লাস্টিক/ PET বোতলে) বহন করতে পারবেন।
  • পরীক্ষার্থীরা প্রয়োজনে ৫০ মিলি মাপের একটি হ্যান্ড স্যানিটাইজার (Hand Sanitizer) বহন করতে পারবেন।

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২২ এর সর্বনিম্ন যোগ্যতা

কেবল মূল ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে ভর্তিযোগ্য প্রার্থীদের মেধা তালিকা তৈরি করা হবে। প্রকৌশল বিভাগসমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের জন্য মােট ১১৫৫ টি আসন (৩টি সংরক্ষিত আসনসহ) এবং স্থাপত্য বিভাগের জন্য মোট ৬০ টি আসন (১টি সংরক্ষিত আসনসহ) নির্ধারিত আছে।

(ক) প্রকৌশল বিভাগসমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের জন্য মূল ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত মোট নম্বরের ভিত্তিতে মেধামান নির্ধারণ করা হবে। একাধিক প্রার্থী একই মােট নম্বর পেলে মুল ভর্তি পরীক্ষায় ক্রমানুসারে গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়নে প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধামান নির্ণয় করা হবে। এরপরও একাধিক প্রার্থী উল্লেখিত বিষয়গুলোর প্রতিটিতে একই নম্বর পেলে তাদের সকলকে একই মেধামান প্রদান করা হবে এবং উক্ত মেধামানে থাকা প্রার্থী সংখ্যা হতে এক বাদ দিয়ে বাকী সংখ্যক ক্রম অতিক্রম করে পরবর্তী মেধামান প্রদান করা হবে।

উল্লেখ্য যে, বায়োমেডিক্যাল প্রকৌশল বিভাগে ভর্তির যোগ্যতা অর্জনের জন্য প্রার্থীকে উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় জীববিজ্ঞান বিষয়ে ন্যূনতম জিপি ৪.০০ পেতে হবে। অথবা GCE ‘A’ লেভেল পরীক্ষায় জীববিজ্ঞান বিষয়ে নূন্যতম B গ্রেড পেয়ে পাশ করতে হবে।

(খ) স্থাপত্য বিভাগের জন্য মুল ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত মোট নম্বরের ভিত্তিতে মেধামান নির্ধারন করা হবে। একাধিক প্রার্থী একই মােট নম্বর পেলে ভর্তি পরীক্ষায় ক্রমানুসারে মুক্তহস্ত অংকন, দৃষ্টিগত ও স্থানিক ধীশক্তি, গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান ও রসায়নে প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধামান নির্ণয় করা হবে। এরপরও একাধিক প্রার্থী উল্লেখিত বিষইয়গুলোর প্রতিটিতে একই নম্বর পেলে তাদের সকলকে একই মেধামান প্রদান করা হবে এবং উক্ত মেধামানে থাকা প্রার্থী সংখ্যা হতে এক বাদ দিয়ে বাকী সংখ্যক ক্রম অতিক্রম করে পরবর্তী মেধামান প্রদান করা হবে। উল্লেখ্য যে, স্থাপত্য বিভাগে ভর্তির যােগ্যতা অর্জনের জন্য প্রার্থীকে Module B এর পরীক্ষায় ন্যূনতম ৪০% নম্বর পেতে হবে।

(গ) অপেক্ষমান তালিকায় থাকা প্রার্থীদের ক্ষেত্রেও উপরোক্ত পদ্ধতি অনুসরণ করা হবে।

(ঘ) ভর্তিকৃত ছাত্রদের বিভাগ বন্টনের ক্ষেত্রে উপরোক্ত পদ্ধতি অনুসরণ করার জন্য কোন বিভাগে নির্ধারিত আসনের অতিরিক্ত আসন প্রয়োজন হলে তা বিবেচনা করা হবে।

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২২ আসন সংখ্যা

প্রকৌশল, পুরকৌশল, যন্ত্রকৌশল, তড়িৎ ও ইলেক্ট্রনিক কৌশল অনুষদসমূহে ৪ বছর মেয়াদী প্রকৌশল-এ স্নাতক ডিগ্রী, স্থাপত্য ও পরিকল্পনা অনুষদের নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগে ৪ বছর মেয়াদী স্নাতক ডিগ্রী এবং স্থাপত্য বিভাগে ৫ বছর মেয়াদী স্নাতক ডিগ্রীর জন্য সর্বমোট আসন সংখ্যা ১২১৫ টি।

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২২ আসন তালিকা

প্রকৌশল অনুষদ আসন সংখ্যা
[১] কেমিকৌশল বিভাগ (Department of Chemical Engineering) ১২০
[২] বস্তু ও ধাতব কৌশল বিভাগ (Department of Materials and Metallurgical Engineering) ৬০

 

পুরকৌশল অনুষদ আসন সংখ্যা
[১] পুরকৌশল বিভাগ (Department of Civil Engineering) ১৯৫
[২] পাণিসম্পদ কৌশল বিভাগ (Department of Water Resource Engineering) ৩০

যন্ত্রকৌশল অনুষদ আসন সংখ্যা
[১] যন্ত্রকৌশল বিভাগ (Department of Mechanical Engineering) ১৮০
[২] নৌযান ও নৌযন্ত্র কৌশল বিভাগ (Department of Naval Architecture and Marine Engineering) ৫৫
[৩] ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড প্রোডাকশন প্রোকৌশল বিভাগ (Department of Industrial and Production Engineering) ১২০

 

তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক কৌশল অনুষদ আসন সংখ্যা
[১] তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক কৌশল বিভাগ  (Department of Electrical and Electronic Engineering) ১৯৫
[২] কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড প্রোকৌশল বিভাগ (Department of Computer Science and Engineering) ১২০
[৩] বায়োমেডিক্যাল প্রকৌশল বিভাগ (Department of Biomedical Engineering) ৫০

 

স্থাপত্য ও পরিকল্পনা অনুষদ আসন সংখ্যা
[১] স্থাপত্য ও পরিকল্পনা (Department of Architecture) ৬০
[২]নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ (Department of Urban and Regional Planning) ৩০

 

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২২ এ ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীভুক্ত প্রার্থীদের জন্য সংরক্ষিত আসন

ভর্তির জন্য বরাদ্দ মোট ১২১৫ টি আসনের মধ্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম ও অন্যান্য এলাকার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীভুক্ত প্রার্থীদের জন্য পৃথকভাবে প্রস্ততকৃত মেধা তালিকা হতে প্রকৌশল বিভাগসমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের জন্য মোট ৩টি (কোন বিভাগে ১টি আসনের বেশী নয়) এবং স্থাপত্য বিভাগের জন্য ১টি সহ সর্বমোট ৪টি আসন সংরক্ষিত থাকবে।

 

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২২ এ আবেদনের নিয়মাবলী

প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় এবং প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষার ফলাফলের মেধাক্রম অনুসারে নির্বাচিত প্রার্থীদের মূল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদনের ফরম কেবলমাত্র অনলাইনে পূরণ করা যাবে এবং আবেদন ফি ‘সোনালী ব্যাংক অনলাইন পোর্টাল’, ‘সোনালী ব্যাংক Sonali esheba মোবাইল অ্যাপ’, নগদ, রকেট, NexusPay, বা বিকাশ মোবাইল/ অনলাইন ব্যাংকিং ব্যাংকিং এর মাধ্যমে প্রদানযোগ্য হবে। কোন ছাপানো ফরম বিক্রয় করা হবে না এবং মোবাইল/ অনলাইন ব্যাংকিং ব্যতীত অন্য কোন মাধ্যমে আবেদন ফি গ্রহণ করা হবে না।

পরীক্ষায় অংশগ্রহণের আবেদনের জন্য নিম্নলিখিত ধাপ সমূহ (STEPS) অনুসরণ করতে হবে। তবে এটি বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, সকল ধাপ সম্পন্ন না করা পর্যন্ত আবেদনটি চূড়ান্তভাবে দাখিল হয়েছে” বলে বিবেচিত হবে না।

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২২ এ আবেদনের ধাপ সমুহ

STEP 1: অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (www.buet.ac.bd)-এর মাধ্যমে প্রথমে আবেদনের ফরম যথাযথভাবে পূরণ করতে হবে এবং আবেদনকারীর সদ্য তোলা পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি (আনুমানিক 300 x 350 pixel ও সর্বোচ্চ 75 KB সাইজের) এবং স্বাক্ষর (স্ক্যানকৃত বা ছবি নেয়া, আনুমানিক 300 x 80 pixel ও সর্বোচ্চ 20 KB সাইজের) আপলোড করতে হবে। ছবি ও স্বাক্ষর উভয়ই JPEG format-এ হওয়া বাঞ্ছনীয়। এই ছবিটির উপর কোন প্রকার লেখা বা সত্যায়ন করা যাবে না। ছবি ও স্বাক্ষরের ক্ষেত্রে কোন ধরণের অস্পষ্টতা বা বিকৃতি গ্রহণযোগ্য নয়। উল্লেখ্য যে, আবেদনকারীর ছবি ও স্বাক্ষর প্রাক-নির্বাচনী/ মূল ভর্তি পরীক্ষার হলে মিলিয়ে দেখা হবে। এসল বিষয় বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ এ বলা হয়।

>আবেদন ফরমের সকল প্রয়োজনীয় তথ্য পূরণ করে “preview” button-এ ক্লিক করলে ছবি ও স্বাক্ষরসহ পূরণকৃত ফরমটি “Preview of Application” page-এ দেখা যাবে। এ অবস্থায় কোন তথ্য সংশোধন করার প্রয়োজন হলে “Update” button-এ ক্লিক করে edit করা যাবে।

>উপরোক্ত ” Preview of Application ” page -এ সকল তথ্য, ছবি ও স্বাক্ষর সঠিক হলে “submit” button ক্লিক করে আবেদনটি submit করতে হবে। উল্লেখ্য যে, Step 3 -এ বর্ণিত “Final Submit” button -এ ক্লিক না করা পর্যন্ত আবেদনটি চূড়ান্ত বলে বিবেচিত হবে না।

>আবেদনটি সঠিকভাবে Submission হলে একটি “Confirmation Page পাওয়া যাবে যাতে একটি ৫ অংকের Application Serial No. সহ প্রয়োজনীয় নির্দেশনা থাকবে। এই Page-এর নীচে অবস্থিত “Download Receipt of Application” Button-টি ক্লিক করলে অনলাইনে পূরণকৃত আবেদনের “Receipt of Application”-এর PDF version টি স্বয়ংক্রিয়ভাবে তৈরী হয়ে যাবে, যা প্রিন্ট করে সংরক্ষণ করতে হবে।

কোন কোন আবেদনকারীর ক্ষেত্রে ভর্তির আবেদনপত্রে ও “Receipt of Application”-এ নিম্নলিখিত কারণে E, T, s বা R চিহ্ন প্রদান করা হবে।

E: GCE “O” লেভেল / GCE “A” লেভেল উত্তীর্ণ ও বিদেশী শিক্ষাবোর্ড হইতে উত্তীর্ণ আবেদনকারী।
T: ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীভুক্ত আবেদনকারী।
S: আবেদনকারী কর্তৃক প্রদত্ত তথ্য ও বোর্ড হতে প্রাপ্ত তথ্য-এর অমিল হলে অথবা আবেদনকারীর তথ্য বোর্ড হতে প্রাপ্ত না হলের
R: ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীভুক্ত আবেদনকারীর ক্ষেত্রে আবেদনকারী কর্তৃক প্রদত্ত তথ্য ও বোর্ড হতে প্রাপ্ত তথ্য-এর অমিল হলে অথবা আবেদনকারীর তথ্য বোর্ড হতে প্রাপ্ত না হলে।

উপরোক্ত E, T, S বা R চিহ্নযুক্ত “Receipt of Application”-এর সাথে পূরণকৃত আবেদনের ফরমটির একটি PDF Version-ও তৈরী হয়ে যাবে যা প্রিন্ট করে সংরক্ষণ করতে হবে। এ সংক্রান্ত পরবর্তী করণীয় STEP 4-এ বর্ণনা করা হয়েছে।

STEP 2:

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২২ এ মোবাইল/ অনলাইন ব্যাংকিং-এর মাধ্যমে আবেদন ফি প্রদান

নিম্নের ছকে বর্ণিত গ্রুপ অনুযায়ী আবেদন ফি ‘সোনালী ব্যাংক অনলাইন পোর্টাল’, ‘সোনালী ব্যাংক Sonali eSheba মোবাইল অ্যাপ’, নগদ, রকেট, NexusPay, বা বিকাশ মোবাইল/ অনলাইন ব্যাংকিং এর মাধ্যমে প্রদান করতে হবে।

বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ আবেদন ফি
বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ এর আবেদন ফি

বিশেষ দ্রষ্টব্য: সঠিক আবেদনকারীদের মধ্য হতে বাছাইয়ের পর প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণে যোগ্য বিবেচিত হয়নি এমন আবেদনকারীকে প্রদত্ত ভর্তি ফি হতে ২০০/- (দুইশত) টাকা প্রক্রিয়াকরণ ফি বাবদ কর্তন করে অবশিষ্ট টাকা সংশ্লিষ্ট আবেদনকারীকে মূল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য বিবেচিত প্রাথীর্দের তালিকা প্রকাশের ৪ সপ্তাহ পর ফেরত দেয়া হবে।

 

সোনালী ব্যাংক অনলাইন পোর্টালের মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি

বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি
বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি

 

১। মোবাইল/কম্পিউটারের ব্রাউজার থেকে https://sbl.com.bd:7070/BUET/Fee ইউ আর এল (URL) এ যেতে হবে।

২। “Student ID” এর জায়গায় এপ্লিকেশন আইডি (Application Serial No.) দিতে হবে, “Fee Type” ঘরে “Admission Application Fee” নির্বাচন করুন এবং “Mobile No” এর জায়গায় আপনার ১১ ডিজিটের ফোন নাম্বার দিয়ে “check” বাটনে ক্লিক করুন।।

৩। সকল তথ্য সঠিক থাকলে আপনার ডিটেলস তথ্য (নাম, টাকার পরিমান ইত্যাদি) দেখাবে। এবার “Confirm Payment” বাটনে ক্লিক করুন।

৪। টাকা জমা দেয়ার মাধ্যম (Account Transfer, Mobile Banking, Debit & Credit card) সিলেক্ট করুন।

প্রয়োজনীয় তথ্যাদি দিয়ে টাকা পরিশোধ করলে একটি ভাউচার দেয়া হবে।

৫। ভাউচার পেলে টাকা পরিশোধ হয়েছে বলে গন্য হবে।

৬। সোনালী ব্যাংক এর যেকোন ধরনের অভিযোগের জন্য https://sbl.com.bd:7070/BUET/Complain/ComplainEntry ইউ আর এল (URL) এ অভিযোগ করতে পারবেন।

সোনালী ব্যাংক অর্থাৎ “Sonali esheba” মোবাইল অ্যাপ এর মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ আবেদন ফি প্রদানের পদ্ধতি।

sonali eSheba
sonali eSheba

১। প্লে স্টোর থেকে Sonali esheba অ্যাপ টি ডাউনলোড করুন।

২। Sonali esheba অ্যাপ এ ঢুকে “BUET” এ ক্লিক করুন।

৩। “Student ID” এর ঘরে এপ্লিকেশন আইডি (Application Serial No) দিন, “Fee Type” ঘরে “Admission Application Fee” সিলেক্ট করুন এবং “Mobile No” এর ঘরে আপনার ১১ ডিজিটের মোবাইল নাম্বার দিন দিয়ে চেক(check) বাটনে ক্লিক করুন।

৪। সকল তথ্য সঠিক থাকলে আপনার ডিটেলস তথ্য (নাম, টাকার পরিমান ইত্যাদি) দেখাবে। এবার “Confirm Payment” বাটনে ক্লিক করুন।

৫। টাকা জমা দেয়ার মাধ্যম (Account Transfer, Mobile Banking, Debit & Credit card) সিলেক্ট করুন।

প্রয়োজনীয় তথ্যাদি দিয়ে টাকা পরিশোধ করলে একটি ভাউচার দেয়া হবে। ৬। ভাউচার পেলে টাকা পরিশোধ হয়েছে বলে গন্য হবে।

৭। সোনালী ব্যাংক এর যেকোন ধরনের অভিযোগের জন্য https://sbl.com.bd:7070/BUET/Complain/ComplainEntry ইউ আর এল (URL) এ অভিযোগ করতে পারবেন।

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি 
নগদ মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি

১। *167# ডায়াল করুন।

২। Bill Pay বেছে নিতে 5 লিখে সেন্ড করুন।

৩। other নির্বাচন করতে 11 লিখে সেন্ড করুন।

৪। Enter Biller A/C Number বেছে নিতে 1 লিখে সেন্ড করুন।

৫৷ বুয়েট-এর নগদ বিলার একাউন্ট নাম্বার (1115) লিখে সেন্ড করুন।

৬। Application Serial No দিতে 1 লিখে সেন্ড করুন।

৭। Application Serial No দিন।

৮। সব তথ্য যাচাই করে পিন টাইপ করুন।

৯। পেমেন্ট সম্পন্ন হলে আপনি একটি Successful Message পাবেন।

Rocket App এর মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি

Rocket App এর মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি
Rocket App এর মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি

 

১। Rocket App এ Log In করুন।

২। Bill Pay অপশনটি নির্বাচিত করুন।

৩। Category অপশন থেকে University নির্বাচন করুন।

৪। Select Biller অপশন থেকে “BUET_Admission” অথবা 292 নির্বাচন করতে হবে।

৫। নির্ধারিত ঘরে আপনার Application Serial No. প্রদান করে Validate অপশনে click করুন এবং বিলের পরিমান ও নাম মিলিয়ে দেখে OK করুন।

৬। Rocket PIN নম্বর প্রদান করে Confirm বাটন Press করুন।

৭। তাৎক্ষণিকভাবে আপনার আবেদন ফি পরিশোধিত হবে, একটি ইলেকট্রনিক রশিদ তৈরি হবে যা পরবর্তী প্রয়োজনের জন্য রেখে দিতে পারেন এবং নিশ্চিতকরণ এস এম এস পাবেন।

 

NexusPay এর মাধ্যমে আবেদন ফি প্রদানের পদ্ধতি

Nexus pay এর মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি
Nexus pay এর মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি

১। NexusPay App এ Log In করে Bill Pay অপশনটি নির্বাচন করুন।

২। Card Type নির্বাচিত করুন।

৩। Other Biller অপশন হতে Choose Biller Category-তে University/College নির্বাচন করুন। ৪। Search Biller Name-4 BUET_Admission forstdal po glooli

৫। নির্ধারিত ঘরে আপনার Application Serial No. প্রদান করে Validate অপশনে Click করুন এবং বিলের পরিমান ও নাম মিলিয়ে দেখে Next অপশনে ক্লিক করুন।

৬। NexusPay PIN নম্বর প্রদান করে Pay Bill অপশনে click করুন।

৭। OTP সংখ্যা দিয়ে আপনার পেমেন্টটি নিশ্চিত করুন।

৮। তাৎক্ষণিভাবে আপনার আবেদন ফি পরিশোধিত হবে, একটি ইলেকট্রনিক রশিদ তৈরি হবে যা পরবর্তী প্রয়োজনের জন্য রেখে দিতে পারেন এবং নিশ্চিতকরণ এস এম এস পাবেন।

 

বিকাশ মোবাইল অ্যাপ এর মাধ্যমে আবেদন ফি প্রদানের পদ্ধতি

বিকাশ এর মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি
বিকাশ এর মাধ্যমে বুয়েট ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি

১। বিকাশ মোবাইল অ্যাপ খুলুন।

২। বিকাশ অ্যাপ স্ক্রিন থেকে পে বিল সিলেক্ট করুন।

৩। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ট্যাপ করে BUET সিলেক্ট করুন

৪। ভর্তির আবেদন আইডি (Application Serial No) এবং আপনার মোবাইল নাম্বার দিন

৫। আপনার আবেদন এর তথ্য এবং ফি পরিমাণ চেক করুন।

৬। আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বার দিন।

৭। পে বিল টি সম্পন্ন করতে হলে স্ক্রিনের নিচের অংশ ট্যাপ করে ধরে রাখতে হবে।

৮। পে বিল সম্পন্ন হলে কনফার্মেশন পাবেন।

STEP 3: Money Receipt সংগ্রহ করণ ও আবেদনটি চূড়ান্তকরণ (Final submission of Application)

একজন আবেদনকারী সঠিকভাবে আবেদন ফি ‘সোনালী ব্যাংক অনলাইন পোর্টাল’, ‘সোনালী ব্যাংক Sonali eSheba মোবাইল অ্যাপ’, নগদ, রকেট, NexusPay, বা বিকাশ মোবাইল/ অনলাইন ব্যাংকিং এর মাধ্যমে প্রদান করলে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট হতে “Download Money-Receipt” লিংকেটিতে ক্লিক করার মাধ্যমে টাকা গ্রহণের রশিদটীর PDF Version ডাউনলোড করার পর তা প্রিন্ট করে নিতে পারবে। তারপর আবেদনকারী ওয়েবসাইটে “Final- Submit” button টিতে ক্লিক করলে আবেদনটী চূড়ান্তভাবে জমা হবে।

STEP 4: শুধুমাত্র E, T, s বা R চিহ্নিত আবেদনকারীদের জন্য প্রয়োজনীয় দলিলাদি জমা প্রদান উপরের STEP 1-এ বর্ণিত যে সকল আবেদনকারীর “Receipt of Application”-এ E, T, S বা R চিহ্ন থাকবে তাদেরকে অবশ্যই অনলাইনে পূরণকৃত ফরমের PDF Version টি ডাউনলোড করে A4 সাইজের ৮০ গ্রাম (gsm) সাদা অফসেট কাগজের এক পিঠে তিন পৃষ্ঠা প্রিন্ট নিতে হবে। এই তিন পৃষ্ঠার প্রথম দুই পৃষ্ঠা হলো অনলাইনে পূরণকৃত আবেদনপত্র ও তৃতীয় পৃষ্ঠাটি হলো “Receipt of Application”।

প্রিন্টকৃত আবেদনপত্রের সাথে নিম্নলিখিত দলিলাদি সংযুক্ত করতে হবে এবং তা নির্ধারিত তারিখের মধ্যে রেজিস্ট্রার অফিসে সরাসরি জমা দিতে হবে অথবা শুধুমাত্র রেজিস্টার্ড ডাকযোগে/ কুরিয়ারের মাধ্যমে রেজিস্ট্রার অফিসে (ঠিকানাঃ রেজিস্ট্রার, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা-১০০০) নির্ধারিত তারিখের মধ্যে প্রেরণ করা যাবে অথবা আবেদনপত্র ও সংশ্লিষ্ট দলিলাদির সফট কপি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটের (http://ugadmission.buet.ac.bd/) এর ‘ETSR File Upload’ লিংকে ক্লিক করে নির্ধারিত তারিখের মধ্যে Upload করা যাবে। শুধুমাত্র রেজিস্টার্ড ডাকযোগে/ কুরিয়ারের মাধ্যমে আবেদনপত্র ও সংশ্লিষ্ট দলিলাদি প্রেরণের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র যে তারিখে পোস্ট করা হবে, সেই তারিখই জমার তারিখ হিসাবে গণ্য করা হবে।

[ক] মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট/দাখিল অথবা সমমানের পরীক্ষার সনদপত্র -এর সত্যায়িত কপি [খ] মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট/দাখিল অথবা সমমানের পরীক্ষার গ্রেডশীট-এর সত্যায়িত কপি [গ] উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট/আলিম অথবা সমমানের পরীক্ষার গ্রেডশীট -এর সত্যায়িত কপি গ্রেডশীট-এর পরিবর্তে সংশিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ কর্তৃক সত্যায়িত ট্যাবুলেশন শীটের কপিও গ্রহণযোগ্য হবে।

[ঘ] প্রিন্টকৃত “Money Receipt”

[ঙ] প্রিন্টকৃত “Receipt of Application”

[চ] ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীভুক্ত প্রার্থীদের সংরক্ষিত আসনে আবেদন করার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের নাগরিকত্ব এবং ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীত্বের প্রমাণস্বরূপ স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ-এর চেয়ারম্যান এবং স্ব-স্ব ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মোড়ল/হেডম্যান/গোত্র প্রধান-এর নিকট হতে সার্টিফিকেট দাখিল করতে হবে।

STEP 5: Admit Card সংগ্রহ

প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য বিবেচিত প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশের পর একজন যোগ্য আবেদনকারীকে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট হতে “Download Admit Card” লিংকে ক্লিক করে প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষার প্রবেশপত্রের PDF Version টি ডাউনলোড করে A4 সাইজের সাদা কাগজে প্রিন্ট নিতে হবে।

পরবর্তীতে প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষার মাধ্যমে মূল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য বিবেচিত প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশের পর একজন যোগ্য আবেদনকারীকে পুনরায় এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট হতে “Download Admit Card” লিংকে ক্লিক করে মূল ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্রটির PDF Version ফাইল টি ডাউনলোড করে A4 সাইজ এর সাদা কাগজ এ প্রিন্ট করে নিতে হবে।

মনে রাখবেন, সঠিক Admit Card ব্যাতিত কোন আবেদনকারিকে প্রাক-নির্বাচনী এবং মূল ভর্তি পরিক্ষায় অংশগ্রহন করতে দেয়া হবে না।

বুয়েট ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২১-২০২২ এ স্পষ্ট বলা হয় যে অসম্পূর্ন ও ত্রুটিপূর্ণ আবেদন পত্র বাতিল করা হবে। আবেদনপত্রের বিবরণ ভুল বা অসত্য প্রমানিত হলেও প্রার্থীর আবেদন বলে গন্য হবে।

আবেদন ফরম অনলাইনে পূরন সংক্রান্ত যে কোন সহযোগীতার জন্য এই বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্টার অফিসের ভর্তি শাখায় যোগাযোগ করা যেতে পারে এবং প্রয়োজনে e-mail করতে পারেনঃ ugadmission@iict.buet.ac.bd

বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২১-২২ এর আবেদন গ্রহণ, ভর্তি পরিক্ষা, বিভাগের অপশান গ্রহন ইত্যাদির তারিখ ও সময়সূচী
বুয়েট ভর্তি পরিক্ষা ২০২১-২২ এর আবেদন গ্রহণ, ভর্তি পরিক্ষা, বিভাগের অপশান গ্রহন ইত্যাদির তারিখ ও সময়সূচী

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ

  • শুক্রবার অফিস বন্ধ থাকবে।
  • ৩ মে ২০২১, সোমবার, বিকাল ৩:০০ টার পর অনলাইনে আবেদনপত্র পূরণ আর শুরু করা যাবে না এবং ঐদিনই বিকাল ৫.৩০ মিনিটে অনলাইনে আবেদনের সার্ভার বন্ধ হয়ে যাবে; এরপর অনলাইনে আর কোন আবেদনপত্র Submit করা যাবে না।
  • প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা শুরু হবার ১৫ মিনিট ও মূল ভর্তি পরীক্ষায় শুরু হবার ৩০ মিনিট পরে কোন আবেদনকারীকে পরীক্ষার হলে প্রবেশ করতে দেয়া হবে

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button