ডেন্টাল ভর্তি আবেদন পদ্ধতি ২০২২। Dental Admission Application Procedure 2022

ডেন্টাল ভর্তি আবেদন করার পূর্বে যে তথ্য জানা জরুরী

ডেন্টাল ভর্তি আবেদন পদ্ধতি ২০২২

ডেন্টাল কলেজে ভর্তি হওয়া অনেকেরে স্বপ্ন। ডেন্টাল স্বপনবাজরা হয়ত জানেন যে ডেন্টাল ভর্তি আবেদন ২০২২ শুরু হয়েছে। ২০ মার্চ ২০২২ থেকে ৩০ মার্চ ২০২২ রাত ১১.৫৯ মিনিট পর্যন্ত আবেদন চলবে। আমাদের আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে কিভাবে একদম জিরো নলেজ থেকে এপ্লাই করবেন তা শিখতে পারবেন। চলুন মূল আলোচনা শুরু করি।

ডেন্টাল ভর্তি আবেদন ২০২২ করতে যেসব তথ্য লাগবে

☑ ডিজিটাল ক্যামেরা অথবা স্ক্যান করা একটি রঙিন ছবি। ছবির ফরমেট অবশ্যই jpg হতে হবে। এক্ষেত্রে ছবির ডাইমেনশান অবশ্যই 300×300 পিক্সেল হতে হবে। সাইজের মাত্রা সর্বোচ্চ 100 KB.

☑ নিজস্ব একটি ইউনিক স্বাক্ষর। অবশ্যই স্বাক্ষরটি ঘাড় কালিতে হতে হবে। সাক্ষরটির সাইজ ৩০০x৮০ পিক্সেল হতে হবে। স্বাক্ষর করা ছবির সাইজ সর্বোচ্চ 60 KB.

☑ তাছাড়া বিভিন্ন ব্যক্তিগত তথ্য যেমন নিজ জেলা বর্তমান ঠিকানা স্থায়ী ঠিকানা ইত্যাদি প্রয়োজন হবে

☑ আবেদনকারীর ভর্তিচ্ছু ডেন্টাল কলেজ সমূহের নাম ও কোড নাম্বার

☑ ডেন্টাল কলেজ ও মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিট নির্বাচনে ডেন্টাল ইউনিট গুলোর নাম ও আসন সংখ্যা প্রয়োজন হবে

ডেন্টাল কলেজ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি পড়তে

ডেন্টাল কলেজ কোড, নাম এবং আসন সংখ্যা

কলেজ কোড নাম আসন সংখ্যা
৭১ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিট ৬০
৭২ ঢাকা ডেন্টাল কলেজ ১১০
৭৮ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিট ৫৯
৮০ শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিট ৫৬
৮২ স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিট ৫২
৭৬ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিট ৫২
৭৫ এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিট ৫২
৮১ শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিট ৫২
৭৯ রংপুর মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিট ৫২

 

ডেন্টাল ভর্তি আবেদন পদ্ধতি ২০২২

আবেদন করার জন্য এই আর্টিকেলের নিচের দিকে “ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন পদ্ধতি ২০২২” বাটনটিতে ক্লিক করুন। বাটনটি আপনাকে আবেদন করার জন্য একটি নতুন ওয়েবসাইটে নিয়ে যাবে। আপনি নিশ্চয়ই খুজছিলেন কিভাবে ডেন্টাল ভর্তি আবেদন ২০২২ করতে পারেন। এবং এই মূহুর্তে ভাবছেন আপনার কাঙ্ক্ষিত তথ্যটি আপনি পেয়ে গেছেন। হ্যা, পেয়ে গেছেন। কিন্তু এতটুকুই যথেষ্ট নয়, আবেদন প্রক্রিয়া টি বেশ কঠিন। আমরা ধাপে ধাপে আবেদন প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করে আপনাদেরকে দেখাচ্ছি। তাই সম্পুর্ন পোস্ট পড়তে থাকুন।

নিচে দেয়া “ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন পদ্ধতি ২০২২” বাটনটিতে ক্লিক করার পর যে ওয়েবসাইটে নিয়ে যাবে তার একটি ছবি যুক্ত করা হলো।

ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন পদ্ধতি ২০২২

দুই নাম্বারে থাকা বিডিএস এডমিশন অপশনটি সিলেক্ট করুন।

ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন পদ্ধতি ২০২২

অপশনটি সিলেক্ট করার পর নিন্মুক্ত ছবির ইন্টারফেসটি দেখতে পাবেন। এই পর্ব গুলো মূলত আপনাকে সঠিকভাবে নির্বাচন করতে হবে।

ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন পদ্ধতি ২০২২ 4

 

☑ ভালোভাবে লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন সেখানে দুইটি অপশন রয়েছে তার মধ্যে একটি এসএসসি সমমান ও এসএসসি সমমান পরীক্ষায় যারা পাস করেছে তাদের জন্য। এবং দ্বিতীয়টি হচ্ছে O- Level/A-Level বা বিদেশ থেকে পাশ করেছে যেসব শিক্ষার্থী তাদের জন্য। বলে রাখা প্রয়োজন যে, দ্বিতীয় আবেদন পদ্ধতি প্রার্থীদের পরিচালক, চিকিৎসা শিক্ষা, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মহাকালী-  এর নিকট থেকে আবেদনের আগেই ইকুইভ্যালেন্ট সার্টিফিকেট আইডি কালেক্ট করতে হবে।তাছাড়া নির্দিষ্ট ফরম পূরণ করা কোনভাবেই সম্ভব নয়।

আমরা আবেদনটি কে দুই ভাগে বিভক্ত করে নিচ্ছি। আমরা প্রথমে এইচএসসি বা সমমান পাস শিক্ষার্থীরা কিভাবে আবেদন করবে তা দেখাচ্ছি। পরবর্তীতে ও লেভেল/ এনেবেল বিদেশ থেকে পাস করা শিক্ষার্থীদের আবেদন পদ্ধতি দেখানো হবে।

☑ এসএসসি সমমান বা এসএসসি সমমান পরীক্ষায় পাস করা শিক্ষার্থীরা ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন করার জন্য প্রথম অপশনটি সিলেক্ট করতে হবে অর্থাৎ online application form for national curriculm (SSC & HSC/Equivalent)

ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন পদ্ধতি ২০২২ 2

online application form for national curriculm (SSC & HSC/Equivalent) সিলেক্ট করার পর নিচের ছবির মত একটি পেইজ আসবে।

ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন পদ্ধতি ২০২২ 3

☑ এ পর্যায়ে আবেদনকারীকে এসএসসি বা সমমান রোল নাম্বার দিতে হবে এবং রেজিস্ট্রেশন নাম্বার দিতে হবে। আবেদনকারীর বোর্ড সিলেক্ট করার পর, এসএসসি পাশের সন দিতে হবে। যে সকল শিক্ষার্থী 2017 সাল হতে 2020 সালের মধ্যে এসএসসি বা সমমান পাস করেছে সেসব শিক্ষার্থী আবেদনের জন্য যোগ্য বিবেচিত হবে।

এবং আবারো এইচএসসি বা সমমানের রোল নম্বর দিতে হবে, রেজিস্ট্রেশন নাম্বার দিতে হবে এবং বোর্ড সিলেক্ট করতে হবে। 2020 এবং 2021 সালে পাশ করা এসএসসি বা সমমান শিক্ষার্থীরাই ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন করতে পারবে। আপনি যদি উপজাতীয় কোটার অন্তর্ভুক্ত থাকেন তবে Tribal/Non-Tribal of Hilltracts সিলেক্ট করুন। সবগুলো তথ্য সঠিকভাবে দিয়েছেন কিনা তা পুনরায় যাচাই করে দেখুন। সঠিক তথ্য হয়ে থাকলে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

☑ উপজাতি পার্বত্য জেলার ও উপজাতীয় আওতাভুক্ত আবেদনকারীরা অ-উপজাতি বা পার্বত্য জেলার অ-উপজাতীয় সনদ বা সার্টিফিকেটের স্মারক নম্বর সনদ নম্বর এবং তারিক অনলাইন আবেদন এ যুক্ত করতে হবে। এসব তথ্য ছাড়া উপজাতি বা পার্বত্য উপজেলার ও উপজাতীয় প্রার্থীগণ আবেদন করতে পারবেন না। এবং ভর্তির সুযোগ পেলে ভর্তি কালীন সময়ে সকল প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে না পারলে ভর্তি বাতিল হয়ে যাবে।

☑ সকল তথ্য গুলো পূরণ করার পর পুনরায় আবার ভালভাবে দেখুন যদি কোন কিছু ভুল হয় রিসেট বাটন এ ক্লিক করে আবার পূরণ করুন। সকল তথ্য সঠিকভাবে পূরণ হলে নেক্সট বাটনে ক্লিক করে পরের পৃষ্ঠায় যেতে হবে।

☑ নতুন পৃষ্ঠাটিতে আসার পর আপনি দেখতে পাবেন ওপরের অংশে প্রার্থীর নিজের নাম জন্মতারিখ পিতা মাতার নাম এবং আবেদন পৃষ্ঠাটির মাঝামাঝি পরীক্ষায় প্রাপ্ত সকল জিপিএ বা গ্রেড পয়েন্ট স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলে আসবে।

☑ আপনি যদি আপনার পরীক্ষাটি ইংরেজি প্রশ্নের ভিত্তিতে দিতে চান তাহলে এখানে Question Language ইংরেজি অপশন সিলেক্ট করুন। মনে রাখবেন আপনি যদি ইংরেজি মাধ্যমের ছাত্র হন তাহলে এটি আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

☑ আবেদনে ম্যান্ডেটরি অপশন গুলো অবশ্যই পুরন করতে হবে নাহয় পরবর্তী পেজে যাওয়া যাবেনা

☑ নিজ জেলা পূরণ করতে হবে

☑ যদি আপনার জেলাতে কোটা বরাদ্দ থাকে বা ভর্তির আসন বরাদ্দ পান তাহলে ভর্তির জন্য সে জেলার সার্টিফিকেট অবশ্যই দেখাতে হবে। সার্টিফিকেট দেখাতে ব্যর্থ হলে বরাদ্দকৃত আসুন বাতিল বলে গণ্য হবে।

☑ পূর্ববর্তী আবেদন পৃষ্ঠায় আপনি যদি Tribal Quota সিলেক্ট করে থাকেন তাহলে এখানেই Tribal Quota লিস্ট থেকে একটি নির্বাচন করতে হবে

☑ আপনি যদি মুক্তিযোদ্ধা কোটার আওতাভুক্ত হন (সন্তান, সন্তানদের সন্তান হলেও )তাহলে Eligible for Freedom Fighter Quota সিলেক্ট করুন। মুক্তিযোদ্ধা কোটায় আবেদনকারীদের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, গত ১৮/১০/২০২০ খ্রি: তারিখ স্মারক নং ৪৮.০০.০০০০.০০৩.২৫.০১৯.২০.৮৭৫ মূল্যে প্রকাশিত মুক্তিযোদ্ধা পরিচয় পত্র অনুযায়ী স্বীকৃত তালিকা গেজেট এর নম্বর আবেদনে যুক্ত করতে হবে। আবেদনকারী যদি চূড়ান্তভাবে ভর্তি পরীক্ষায় পাশ করেন পদে নির্বাচিত ডেন্টাল কলেজে ভর্তির সময় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় প্রদত্ত পরিচয় পত্র অনুযায়ী অন্তর্ভুক্তির যথাযথ প্রমাণ দেখাতে হবে। প্রমাণ করতে ব্যর্থ হলে ডেন্টাল কলেজে ভর্তির যোগ্যতা হবে না। যদি কোন আবেদনকারী ভুল করে মুক্তিযোদ্ধা কোটা সিলেক্ট করেন তাহলে মেধা কোটায় আসুন পেলেও ভর্তি হতে পারবে না অর্থাৎ ভর্তি বাতিল করা হবে। এবং মুক্তিযুদ্ধা কোটার দাবিদার যারা নাতি তাদের ক্ষেত্রে সরকার কর্তৃক আরোপ করা অন্যান্য আইন কানুন অনুসরণ করা হবে।

☑ আবেদনের এ পর্যায়ে বর্তমান ঠিকানা(Present Address) এবং স্থায়ী ঠিকানা(Permanent Address)পূরণ করতে হবে। বর্তমান এবং স্থায়ী ঠিকানা একই থাকে তবে পার্মানেন্ট এড্রেস(Permanent Address) এর সামনে বাটনে ক্লিক করলেই বর্তমান ঠিকানাটি স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে ধরে নিবে

☑ এ পর্যায়ে আপনাকে একটি 11 ডিজিটের মোবাইল নম্বর দিতে হবে যা ম্যান্ডেটরি অর্থাৎ মোবাইল নাম্বারটি আপনাকে অবশ্যই দিতে হবে। এবং আবেদন ফি জমাদানের মাধ্যমে আবেদন কার্যক্রম সম্পন্ন হবার পর এই মোবাইল নাম্বারে USER ID, PASSWORD এবং কেন্দ্রের নাম কোথায় পরীক্ষা হবে এসএমএসের মাধ্যমে জানানো হবে। তবে আপনি চাইলে দ্বিতীয় আরেকটি নাম্বার যুক্ত করতে পারবেন। আমরা মনে করি দ্বিতীয় নাম্বার যুক্ত করাই উত্তম। এবং ভর্তি প্রক্রিয়া চলাকালীন সময়ে অবশ্যই মোবাইল নাম্বার গুলো খোলা রাখুন যেকোনো সময়ে গুরুত্বপূর্ণ কল বা মেসেজ আসতে পারে।

☑ আপনার কলেজ চয়েজ অপশন দিতে হবে অর্থাৎ আপনি কোন কোন কলেজে আবেদন করতে চান তা দিতে হবে। ডেন্টাল ভর্তি আবেদন কলেজ চয়েজ করতে বামপাশের কলেজ লিস্ট অপশন থেকে পছন্দের কলেজগুলোকে অ্যাড বাটনে ক্লিক করলে সেটা সিলেট ডান দিকে যাবে। এভাবেই আপনার অন্যান্য পছন্দের কলেজগুলো আবেদনে যুক্ত করুন। চেষ্টা করবেন অধিক পরিমাণ কলেজ আবেদনে নির্বাচন করার জন্য। কেননা আপনার আবেদনটিতে কলেজ চয়েজ কম থাকলে আপনি যদি মেধাতালিকা নির্বাচিত হন তবে আপনার নামটি ওয়েটিং লিস্টে চলে যেতে পারে এবং আসন্ন পাওয়ার একটি সম্ভাবনা থেকে যায় তাই সর্বোচ্চ সংখ্যক কলেজ নির্বাচন করুন।

☑ আপনি আবেদনের শেষ পর্যায়ে চলে এসেছেন। এবার আপনাকে ছবি ও স্বাক্ষর আপলোড করতে হবে। খুব সহজেই choose বাটনটিতে ক্লিক করে কোন০ ফোল্ডারে ছবিটি রয়েছে সেখানে গিয়ে ছবিটি সিলেক্ট করুন। একইভাবে আপনি আপনার নিজ হাতে লেখা স্পষ্ট স্বাক্ষরটি আপলোড করুন। মনে রাখবেন আপনি যদি ছবি এবং স্বাক্ষর এর ডাইমেনশান অর্থাৎ সাইজ সঠিক না রাখেন তাহলে স্বাক্ষর এবং ছবি আপলোড হবে না। ছবি এবং স্বাক্ষর এর সাইজ এর সাথে সর্বোচ্চ ফাইল সাইজ এর ব্যাপারটা মাথায় রাখতে হবে।

☑ Validation Code ঠিক যেভাবে দেওয়া আছে সেভাবে টাইপ করতে হবে। নাহয় Submit হবে না। ২৩.২৩ পৃষ্ঠার শেষে Declaration বাটনটিতে ক্লিক করুন, এবং Submit বাটনে ক্লিক করুন।

☑ ছবি গুলো ভালভাবে ফরম্যাট করে নিতে হবে। ছবি ও স্বাক্ষর সাইজ মত না হলে আপলোড করতে পারবেন না। ছবি ও স্বাক্ষর সাইজ এবং মেগাবাইট থেকে বাইটে ট্রান্সফার করতে এই সাইট টি দেখুন।

☑ এবার এই পৃষ্ঠায় একটি User ID নম্বর দেখতে পারবেন। নম্বরটি অবশ্যই যত্ন সহকারে সংরক্ষণ করতে হবে, কারণ User ID দিয়ে টেলিটক প্রি-পেইড নম্বর এর মাধ্যমে আবেদন পত্রের ফি (১০০০ টাকা) জমা দিতে হবে। আবেদনকারীর ছবি ও স্বাক্ষর সহ আবেদনে দেয়া সকল তথ্য দেখা যাবে। এই পৃষ্ঠাটি অবশ্যই প্রিন্ট করে রাখুন। কেননা এই ছবি ও স্বাক্ষরের মাধ্যমেই তিনি সর্বত্র পরিচিত হবেন।

☑ এ পৃষ্ঠায় যদি কোন ভুল তথ্য দেখতে পান অথবা ছবি বা স্বাক্ষর প্রদানে কোন ভুল হয় তবে সঠিক ছবি/স্বাক্ষর বা ভুল হয়া তথ্য যাচাই করে নতুনভাবে আবারো ফরম পূরণ করতে হবে। আবেদন ফি’র টাকা জমা দিয়ে দেবার পরে ছবি বা স্বাক্ষর পরিবর্তনের কোন সুযোগ  নেই।

যদি কোন কিছু বুঝতে অসুবিধে হয় তবে কারিগরি সাহায্যর জন্য যে কোন টেলিটক নম্বর থেকে ১২১ অথবা অন্য যে কোন মোবাইল অপারেটর থেকে ০১৫০০১২১১২১ নম্বটিতে দিন রাত ২৪ ঘন্টা কল করে সাহায্য পেতে পারেন। ২৩.২৭ টেলিটক প্রি-পেইড নম্বর থেকে ফি জমা দেবার পর একটি User ID এবং Password পাবেন, যা উভয় নম্বরে আসবে। আবেদনপত্রটি পূরণের সময় স্টার চিহ্নিত ফোন নম্বরটি যে কোন অপারেটরের মোবাইল নাম্বার হতে পারে।আবেদন থেকে পাওয়া User ID ও Password দিয়ে ১৭-০৪-২০২২ইং, রবিবার থেকে আবেদনকারী প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবে।

ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন করতে

ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন ফি জমা দেয়ার পদ্ধতি

(ক) শুধু মাত্র আবেদন ফিসের টাকা (১০০০) Prepaid টেলিটক মোবাইল অপারেটরের মাধ্যমে জমা দিতে হবে। তথ্য সংবলিত SMS টি আবেদন ফরম পূরনের সময় দেয়া মোবাইল নম্বরে দেওয়া হবে।

টেলিটকের প্রি-পেইড সিম ইনচার্জ করা মোবাইল ফোনের Message অপশনে গিয়ে লিখুন BDS, স্পেস দিয়ে লিখুন User ID এবং 16222 নম্বরে SMS টি পাঠাতে হবে। উদাহরণ: BDS<Space>FRLGCT টাইপ করে Send করুন 16222 নম্বরে।

উদাহরনে দেয়া FRLGCT হচ্ছে ফরম পূরণ করার পর পাওয়া User ID টি। ফিরতি SMS-এ একটি PIN, আবেদিত প্রার্থীর নাম এবং পরীক্ষার ফি হিসেবে ১০০০/- (এক হাজার) টাকা চার্জ রাখা হয়েছে এরুপ তথ্য দিয়ে সম্মতি চাওয়া হবে। সম্মতি দিতে হলে নিম্নোক্ত পদ্ধতিতে 16222 নম্বরে পুনরায় SMS পাঠাতে হবে।

(খ) ফোনের Message অপশনটিতে গিয়ে লিখুন BDS, স্পেস দিয়ে YES লিখুন, আবারো স্পেস দিয়ে PIN নাম্বার লিখে স্পেস দিয়ে আপনার পছন্দ মত সর্বোচ্চ চারটি Centre Code কমা (,) দিয়ে 16222 নম্বরে SMS টি প্রেরণ করুন। (উদাহরণ: নিচে দেওয়া হয়েছে)

উদাহরণ: BDS<Space>YES<Space> 4০6২89<Space> 72.73.80.82 টাইপ করে Send করুন 16222 নম্বরে। এখানে 456789 হলাে আগের ফিরতি SMS এ পাওয়া PIN Number এবং 71.74.81.82 নম্বরগুলো হল পরীক্ষা কেন্দ্রের কোড নম্বর। PIN নম্বরটি যদি সঠিক ভাবে লেখা হয়, তাহলে উক্ত টেলিটক প্রি-পেইড মোবাইল নাম্বার থেকে পরীক্ষার ফি বাবদ মোট ১০০০/- (এক হাজার) টাকা কেটে নেয়া হবে এবং প্রার্থীকে ফিরতি একটি SMS-এ পরীক্ষা কেন্দ্রের নাম জানানো হবে এবং একটি User ID ও Password প্রধান করা হবে।

ডেন্টাল ভর্তি পরিক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করার পদ্ধতি

☑ ১৭ এপ্রিল ২০২২ থেকে আবেদিত সকল প্রার্থী User ID ও Password দিয়ে প্রবেশ পত্রটি Download করে প্রিন্ট করে নিবেন।

☑ প্রবেশপত্র ওয়েবসাইটে দেওয়ার প্রসঙ্গে মোবাইল ফোনে একটি মেসেজ পাবেন। যদি প্রবেশ পত্র ডাউনলোড করে প্রিন্ট করার পরে হারিয়ে যায় তবে পুনরায় একই প্রক্রিয়াতে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে নিতে হবে।

☑ পরীক্ষার অনুষ্টিত হবার পরে ফলাফল প্রার্থীর মোবাইলে SMS করা হবে। তাছাড়া, DGME এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট www.dgme.gov.bd ও DGHS এর ওয়েবসাইট www.dghs.gov.bd এর মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে।

☑ পরিক্ষার হলে অবশ্যই প্রবেশ পত্র এবং এইচএসসি/সমমান পরীক্ষার Registration ফরম নিয়ে আসতে হবে।

☑ আপনি যদি Prepaid টেলিটক সিমের মাধ্যমে ফিস জমা দেন তাহলে User ID এবং Password পাওয়া যাবে। যা উভয় মোবাইল নম্বরেই আসবে। ডেন্টাল কলেজ ভর্তি আবেদন ফরম পূরনের সময় লেখা স্টার চিহ্নিত মোবাইল নম্বরটি যে কোন অপারেটর নাম্বার হলেও চলবে। অত্র User ID এবং Password দিয়ে আগামী ১৭-০৪-২০২২ইং, রবিবার থেকে প্রবেশপত্র ডাউনলোডকরতে পারবেন।

☑ ১৭-০৪-২০২২ইং রবিবার থেকে ১৯-০৪-২০২২ইং, মঙ্গলবার পর্যন্ত সকল প্রার্থী তাদের User ID এবং Password দিয়ে নির্ধারিত ওয়েবসাইট থেকে ডেন্টাল কলেজ পরিক্ষা প্রবেশ ২০২২ পত্র Download করে প্রিন্ট করে নিবেন।

 

2 Comments

  1. ভাইয়া, ধন্যবাদ।
    বেশ পরিষ্কার ভাবেই বুঝতে পারছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button