জনসংখ্যা কাকে বলে? প্রকৃতিক পরিবেশের উপর জনসংখ্যা বৃদ্ধির প্রভাব

জনসংখ্যা কী? পরিবেশের উপর জনসংখ্যা প্রভাব

জনসংখ্যা কাকে বলে? প্রকৃতিক পরিবেশের উপর জনসংখ্যা বৃদ্ধির প্রভাব




জনসংখ্যা কী বা কাকে বলে?

মানবিক ভূগলে‘র একটি প্রধা‘ন উপজীব্য বিষ‘য় হলো জনসংখ্যা। কোন দেশের  নারী পুরুষ মেলে যে মোট লোক সংখ্যা হয় তাকে ওই দেশের জনসংখ্যা বলে।  অর্থাৎ, কোন একটি নির্দিষ্ট ভূখন্ডের একক জনগোষ্ঠীকে ওই ভূখন্ডের জনসংখ্যা বলে।




উদাহরণ সরুপ: মালদ্বীপ একটি দ্বীপ রাষ্ট্র। মাল দ্বীপের আয়তন অনেক কম। এ দেশটিতে ছেলে, মেয়ে, নারী পুরুষ মিলে ৫ লাখের বেশি লোকসংখ্যা রয়েছে। তাহলে মালদ্বীপের জনসংখ্যা হলো ৫ লাখের বেশি।  অর্থাৎ, কোন দেশের মোট লোকসংখ্যাই হলো ওই দেশের জনসংখ্যা।

আরও পড়ুন:

পরিবার পরিকল্পনা কি? 

পরিবেশ কাকে বলে? পরিবেশ কত প্রকার ও কি কি?

প্রাকৃতিক পরিবেশের উপর জনসংখ্যা বৃদ্ধির প্রভাব

  • জনসংখ্যা বৃদ্ধির ফলে প্রাকৃতিক পরিবেশের উপর নানা প্রভাব পড়ে।  নিম্নে সেগুলো ব্যখ্যা করা হলো-
  • দেশে জনসংখ্যা অতিরিক্ত হয়ে যাওয়ার কারণে খাদ্যের সংকট দেখা দিচেছ।
  • জনসংখ্যা বেশি হলে আবাস্থলের জন্য জমির প্রয়োজন হয়।  এছাড়া, রাস্তাঘাট, বাজার, স্কুল, কলেজ, হাসপাতাল ইত্যাদির জন্যও জমির প্রয়োজন হয়। যার কারণে চাষযোগ্য জমির পরিমাণ কমে যাচ্ছে।
  • অধিক জনসংখ্যার কারণে মাটি দূষিত হচেছ।  কেননা, অধিক জনসংখ্যার কারণে প্লাস্টিক, পলিথিন ইত্যাদির  ব্যবহার বেড়ে যাচ্ছে।  যার কারণে মাটি দূষিত হচ্ছে।
  • অধিক জনসংখ্যা বনজ সম্পদ নষ্ট করছে।  কেননা, মানুষ বাড়তি শস্য উৎপাদন ও পশু পালনের আশায় বন কেটে উজাড় করে দিচ্ছে।  এতে করে অন্যান্য জীবের আবাস্থল ধ্বংস হচ্ছে একইসাথে, জীব ধীরে ধীরে বিলুপ্ত হচ্ছে।
  • কৃষিতে অধিক শস্যের আশায় মানুষ রাসায়নিক সার ও কীটনাশকের অতিরিক্ত ব্যবহার করছে।  যা মাটি ও পানি দূষিত করছে।
  • যাতায়াতের জন্য জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার বাড়ার ফলে পরিবেশে ক্ষতিকারক গ্যাসের পরিমাণ বেড়ে যাচ্ছে।
  • এছাড়া, বিভিন্ন কল-কারখানা, ইটের ভাটা ইত্যাদি নির্মাণের ফলে এসবের বর্জ মাটি পানিতে মিশে পরিবেশের নানা ক্ষতি করছে যা পরিবেশের জন্য হুকমি হয়ে দাড়িয়েছে।  এর ফলে পৃথিবীর উষ্ণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে একইসাথে এসিড বৃষ্টি হচ্ছে।




আরও পড়ুন:

বিবাহ কাকে বলে? বিবাহের প্রকারভেদ




জনসংখ্যা সমস্যা নিরসনে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির অবদান

  • বিভিন্ন ধরণের আধুনিক কৃষি যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে কম সময়ের মধ্যে অধিক ফসল ফলানো।
  • জৈব প্রযুক্তি ব্যবহার করে অধিক পুষ্টিসম্পন্ন উৎপাদনশীল ফসল উদ্ভাবন করা।
  • জীবাশ্ম জ্বালানীর ব্যবহার কমিয়ে বিদ্যুৎ ও তেল নির্ভর
  • হাইব্রিড গাড়ি উদ্ভাবন করা।
  • অনবায়নযোগ্য শক্তির বিকল্প হিসেবে অন্য কিছু উদ্ভাবন করা। বিশেষ করে সৌর শক্তিকে এক্ষেত্রে কাজে লাগানো।

###

এই পোস্ট থেকে আমরা জনসংখ্যা কাকে বলে? প্রকৃতিক পরিবেশের উপর জনসংখ্যা বৃদ্ধির প্রভাব সম্পর্কে জানতে পারলাম। পোস্টটি কেমন লাগলো আমাদের কমেন্ট করে জানান। ধন্যবাদ।




Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button