ইফতারের দোয়া ও ইফতারের সময় করণীয়

ইফতারের দোয়া

ইফতারের দোয়া 

ইফতার পবিত্র রমজানের অন্যতম ইবাদত। আল্লাহর নির্দেশে সেহরির পর সারাদিন অনাহারে থেকে সূর্যান্তের পর ইফতার করতে হয়। ইফতারের মুহূর্ত একজন রোজাদারের জন্য পরম আনন্দের। আল্লাহর  নবী (সা.) ও সাহাবারা ইফতার করতেন।

দ্রুত ইফতার করা সুন্নাত। ইফতারের বিশেষ গুরুত্ব ও ফজিলত রয়েছে। কিছু নিয়ম মেনে ইফতার করা প্রয়োজন।

 

ইফতারের আগের দোয়া –

আরবি :

بِسْمِ الله – اَللَّهُمَّ لَكَ صُمْتُ وَ عَلَى رِزْقِكَ وَ اَفْطَرْتُ

বাংলা উচ্চারণ – ‘বিসমিল্লাহি আল্লাহুম্মা লাকা ছুমতু, ওয়া আলা রিযক্বিকা আফত্বারতু।

বাংলা অর্থ-  আল্লাহর নামে (শুরু করছি); হে আল্লাহ! আমি আপনারই সন্তুষ্টির জন্য রোজা রেখেছি এবং আপনারই দেয়া রিযিজের দ্বারা ইফতার করছি। (আবু দাউদ; হাদিস : ২৩৫৮)

 

ইফতারের সময় করণীয়

  • ইফতারের সময় হওয়ার সাথে সাথে ইফতার করা।
  • এসময় অন্য কাজে ব্যস্ত না হওয়া।
  • ইফতারের সময় বেশি বেশি দোয়া ও ক্ষমা প্রার্থনা করা।
  • ইফতারে দেরি করে মাগরিবের জামাত বাদ না দেওয়া।
  • খেজুর, সাদা পানি অথবা দুধ দিয়ে ইফতার করা।
  • এসময় ভারী খাবার না খাওয়া। মাগরিবের নামাজ আদায় শেষে তৃপ্তি সহকারে খাবার খাওয়া।

 

ইফতারের পর এর দোয়া

আরবি :

ذَهَبَ الظَّمَاءُ وَابْتَلَتِ الْعُرُوْقُ وَ ثَبَتَ الْأَجْرُ اِنْ شَاءَ اللهُ

বাংলা উচ্চারণ : ‘জাহাবাজ জামাউ; ওয়াবতালাতিল উ’রুকু; ওয়া ছাবাতাল আঝরূ ইনশাআল্লাহ।’

বাংলা অর্থ : ‘ পিপাসা দূর হলো, শিরা-উপসিরা সিক্ত হলো এবং যদি আল্লাহ চান সাওয়াবও স্থির হলো ‘ (আবু দাউদ, মিশকাত)।

 

সেহরির দোয়া কী-

সেহরির বিশেষ কোনো দোয়া নাই। তবে, রোজা রাখার নিয়তে সাহরি খাওয়া সুন্নত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button